তোমরা যেমন ধর্মের নামে বাতাসে ওড়াও বিষ,
জেহাদি কবিও তেমন লিখছে এবং লিখবে, শোনো-
কটা দেশ ভেঙে তার থেকে কিছু মিথ্যে তৈরি হলেই,
তোমরা কি ভাবো- মানুষ স্বপ্ন দেখবে না কক্ষণো!?

যাদের ধর্ম ধূলোটুলো মেখে বাসে ট্রামে ঘোরে রোজ,
যাদের ধর্ম এখনো নামছে প্রতিবাদে আর ঘামে-
তাদের সরাতে তোমার আঘাত এখনো ঠুনকো বলেই
অসাড় দৌড় উপায় না পেয়ে রক্তের কাছে নামে।

ঠুলি পরা চোখ, ধার্মিকতার সাতপাঁচ জেনে নিলে।
শুধু জানলে না বিশ্বাস আর প্রতিশ্রুতির সাথে-
তোমার ধর্ম যেমন বেঁচেছে মৌলবাদের ধাঁচে
আমার ধর্ম তেমনই বাঁচছে হাতে রাখা কিছু হাতে।

বাইরে এখনো গলিঘুজি থেকে রাজপথ বের হয়-
এখনো সত্যি বলার কলম বিকিয়ে যায়না শেষে।
তোমরা যেটাকে ‘ধর্ম’ বলছ গলায় চাপাতি ধরে-
কেউ কেউ তাকে ‘মানুষ’ বলেই গর্জায় ভালবেসে।

এখন কি হবে??? ধর্মের নামে বাতাসে বিষের সাথে,
কিছু বিশ্বাস উড়বে ভীষণ, কিছু সত্যের গানও।
রবীন্দ্রনাথ কিছু কলমে তো বলবেই উঠে এসে-
এ অভাগা দেশে আর কিছু নয়, জ্ঞানের আলোক আনো…

 

সৃজা ঘোষ ‘আকাশবাণী’-র উপস্থাপক। 

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *